দি হবিট-পাঠ প্রতিক্রিয়া

পাঠক প্রতিক্রিয়াটি লিখেছেন: রাফায়েত ইসলাম রিফাত

কাহিনী সংক্ষেপঃ

বিলবোকে নিজের অনিচ্ছায় বের হতে হয়েছিল যুদ্ধের জন্য। তা-ও যেমন তেমন যুদ্ধ নয়। যুদ্ধটা ড্রাগনের বিরুদ্ধে। বহুবছর অগে লোনলি মাউন্টেন শহরে বসবাস ছিল বামনদের। শহরটি সোনাদানা, হীরে-জহরতের কোনো অভাব ছিলনা । হঠাৎ লোনলি মাউন্টেন শহরে একদিন আক্রমণ করেন ড্রাগন। এই অপ্রত্যাশিত আক্রমণের জন্য সেই শহরে বসবাসরত কোনো বামন প্রস্তুত ছিলনা। সেইদিনের পড় থেকে শহরটি চলে যায় ড্রাগনের কব্জায়।

দি হবিট

ড্রাগন যখন অকল্পনীয় আক্রমণ চালাচ্ছিল বামনদের উপরে। তখন কিছু বামন লোনলি মাউন্টেন শহরের বাহিরে ছিল। তারা বাহিরে থাকার কারনে পালাতে সক্ষম হয়। যারা পালিয়েছেন তাদের মধ্যে পর্বতের রাজা, থ্ররের নাতি থরিন ও ছিল।থ্ররের নাতি থরিনএবং আরো এগারোজন বামন সাথে ছিল আর ছিলো জাদুকর গ্যান্ডালফ। তাদের উদ্দেশ্য আবার সেই লোনলি মাউন্টেন পুনরায় উদ্ধার করবেন। জাদুকর গ্যান্ডালফ এর কথার আর পরিস্থিতির প্যাঁচে পড়ে বিলবো মানে ছোটো হবিটকে নিজের অনিচ্ছায় বের হতে হয় লোনলি মাউন্টেন শহরের উদ্দেশ্যে। লোনলি মাউন্টেন পৌঁছানোটা সহজ কথানই তার জন্য পারি দিতে হবে বিশাল পথ। আর মুখোমুখি হতে হবে নানারকম ঝামেলার। এই ঝামেলা গুলো পাড়ি দিয়ে সেখানে পৌঁছালেই বিপদ শেষ না। সেখানে পৌঁছে লড়তে হবে ড্রাগনের সাথে। বিলবো তার জন্য একদমই প্রস্তুত ছিলনা। তার পরেও পুরো যাত্রাপথে সব থেকে বেশি কাজে লেগেছে এই ছোটো হবিটটাকে। এই অল্প সাহসী হবিটাই যাত্রাপথের শেষের দিকে অন্যরকম এক সাহসী হয়ে উঠলো।মন্তব্যঃ এককথায় বলতে গেলে অসাধারণ।

৩৫২ পৃষ্ঠার বই পড়তে সাধারণত অনেক সময় বিরক্তি লাগে। কিন্তু এই বইটা পড়তে কোনোরকম বিরক্তি বা খারাপ লাগেনি। আমি শুধু প্রথম অধ্যায়টা পড়েছিলাম তারপরের অধ্যায় গুলো বই আমাকে পড়তে বাধ্য করেছে। মহিউল ইসলাম মিঠু ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ এতো সুন্দর একটা বই বাংলাভাষায় অনুবাদ করার জন্য।

রেটিং মন্তব্যঃবইটা যে পড়বে তার 5star ★ রেটিং দিতে হবে।

বইটার যোগ্যতা দেখে 5star দিতেই হবে। অসাধারণ একটা বই।

উপসংহারঃ

সবার ভালো কামনা করছি। ঘরে থাকুন,ভালো থাকুন। পরিবার, প্রিয়জনদের ভালো রাখুন।অবশ্যই একমাত্র আল্লাহ পারেন আমাদেরকে এ-ই সমস্য থেকে মুক্তি দিতে। আমরা সকলেই নামাজ পড়ে আল্লাহর কাছে এই মহামারী থেকে ক্ষমা চাবো। ইনশাআল্লাহ, আল্লাহ আমাদের মহামারীর হাত থেকে মুক্তি দিবেন।

বইঃ দি হবিট

লেখকঃজে, আর, আর, টলকিন

অনুবাদঃ মহিউল ইসলাম মিঠু

পৃষ্ঠাঃ৩৫২

রেটিংঃ✪✪✪✪✪

বইটির ব্যাপারে সব বিস্তারিত পাওয়া যাবে এই লিংকে: দি হবিট – বই পরিচিতি

Author: MIM

মহিউল ইসলাম মিঠু কৌতুহলী মানুষ। জানতে ভালোবাসেন। এজন্যই সম্ভবত খুব অল্প বয়সেই বইয়ের প্রতি ভালোবাসা জন্মায়। পড়ার অভ্যাসটাই হয়তো ধীরে ধীরে লেখার দিকে ধাবিত করেছিল। বাংলাদেশে প্রথমসারির জাতীয় পত্রিকা, সংবাদপত্র ও ওয়েবসাইটের জন্য লিখেছেন বিভিন্ন সময়। তিনি বাংলাদেশের প্রথম অনলাইন কিশোর-ম্যাগাজিন ‘আজবদেশ’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের একজন। অনেকগুলো জনপ্রিয় বই অনুবাদ করে বিভিন্ন স্তরের পাঠকের আস্থা অর্জন করেছেন, জিতে নিয়েছেন ভালোবাসা। তার অনুদিত কিছু বই বিভিন্ন সময় জাতীয় বেস্ট-সেলারের তালিকাগুলোতে ছিল।

Share This Post On

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Share via
Copy link